আদালতের কাঠগড়ায় বসে ফোনে কথা বলছেন সিনহা হত্যা মামলার প্রধান আসামী ওসি প্রদীপ

0 ১১

চাঞ্চল্যকর ও আলোচিত সিনহা হত্যা মামলার শুনানির সময়, আদালতের কাঠগড়ায় বসে মুঠোফোনে কথা বলেছেন কক্সবাজারের টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি ও এই মামলার প্রধান আসামী প্রদীপ কুমার দাশ।

সোমবার (২৩ আগস্ট) কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে সিনহা হত্যা মামলার প্রথম দিনের সাক্ষ্যগ্রহণের সময় এ ঘটনা ঘটে।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, কালো রঙের জামা পরে আদালত কক্ষের কাঠগড়ার ভেতর হাঁটু গেড়ে বসে আছেন প্রদীপ। হাতে থাকা মুঠোফোন কানে লাগিয়ে কথা বলছেন কারও সঙ্গে। এ সময় কয়েকজন ব্যক্তি তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, মুঠোফোনে ওসি প্রদীপ লম্বা সময় ধরে কথা বলেন। সম্ভবত তিনি বেশ কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলেছিলেন। কথা বলার জন্য মুঠোফোনটি ওসি প্রদীপকে সরবরাহ করেছিলেন দায়িত্বরত একজন পুলিশ সদস্য।

এ সময় আদালতের বাইরে সাংবাদিকদের ছবি তুলতে দেখে বিরক্তি নিয়ে বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন ‘আমাকে আর নতুন করে চেনানোর দরকার নেই’।

এদিকে প্রদীপের ছবিটির বিষয়ে আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) ফরিদুল আলম গণমাধ্যমকে বলেন, মুঠোফোনে কথা বলার ছবিটি মঙ্গলবারের নয়। সাক্ষ্য গ্রহণের প্রথম দিনের (সোমবারের) হতে পারে। তবে কে বা কারা এই ছবি তুলেছেন, তা এখনও অজানা। মুঠোফোনে ওসি প্রদীপ কার সঙ্গে কথা বলেছেন, তা অনুসন্ধান করা জরুরি বলে মনে করেন এই আইনজীবী।

বিচার বিভাগীয় বাতায়নের দেওয়া আদালতের আচরণবিধির কথা উল্লেখ করে পিপি ফরিদুল আলম আরও বলেন, আদালত চলাকালে বিচারসংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ছাড়া বাইরের লোকজনের প্রবেশ বন্ধ রাখা হয়েছে। এমনকি গণমাধ্যমকর্মীরাও আদালতের ভেতরে থাকার সুযোগ পাচ্ছেন না। সেখানে মুঠোফোন বন্ধ রাখার নির্দেশনাও রয়েছে।

উল্লেখ্য, বিচার বিভাগীয় বাতায়নে দেওয়া আদালতের আচরণবিধিতে বলা হয়েছে, আদালত চলাকালীন সময়ে মোবাইল ফোন বন্ধ রাখতে হবে। অর্থাৎ, মোবাইল ফোন ব্যবহার করা যাবে না।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com