ইনু’রা ৭২ থেকে ৭৫ পর্যন্ত কিভাবে মানুষ খুন করেছে তা জনগণ ভুলে যায়নি: রিজভী

0 ৪৮

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকারের ব্যর্থতা আড়াল করতেই আইনমন্ত্রীসহ সরকারের মন্ত্রীরা জিয়াউর রহমানকে নিয়ে কুৎসা রটাচ্ছেন।

গতকাল শনিবার(১৪ এপ্রিল) টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বিএনপির করোনা হেল্প সেন্টার উদ্ভোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, সরকার করোনা নিয়ন্ত্রণে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। সরকারের ব্যর্থতায় সারাদেশ এখন গোরস্থানে পরিণত হয়েছে। করোনার প্রায় পৌনে দু বছরেও সরকার মানুষ বাঁচানেরা পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে। হাসপাতালে অক্সিজেন নেই, আইসিউ নেই, ভেন্টেলেটর নেই, চারদিকে নৌরাজ্যে চলছে। বিএনপিকে নি:শেষ করতে নানা নিফীড়ন চলছে, অপচেষ্টা চলছে। সকল নৈরাজ্য ও ব্যর্থতা ঢাকতেই এখন মন্ত্রীরা মহান স্বাধীনতার ঘোষক, সেক্টর কমান্ডার জিয়াউর রহমানকে সামনে টেনে এনে তার নামে কুৎসা রটাচ্ছে। কিন্ত যতই কুৎসা রটান না কেন কোন অপতৎরতা করে শহীদ জিয়াকে খাটো করতে পারবেন না বরং জিয়াউর রহমানের জনপ্রিয়তা আরও বাড়বে।

রিজভী আরও বলেন, আপনাদের মনে আছে ১/১১ এর সময় বর্তমান আইনমন্ত্রীর কি ভূমিকা ছিল। তখন তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও বর্তমান প্রধামন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে সাজা দেওয়ার জন্য এহেন কোন কর্মকান্ড নেই তিনি করেননি। এখন সেসব অপকর্ম ঢাকতে ও প্রধানমন্ত্রীকে খুশি করতে জিয়াউর রহমানের বিরুদ্ধে কথা বলছেন। যাতে প্রধানমন্ত্রী খুশি থাকেন, মন্ত্রীত্ব ঠিক থাকে।

হাসানুল হক ই্নুর সমালোচনা করে রিজভী বলেন, ইনু সাহেবরা ৭২ থেকে ৭৫ পর্যন্ত কিভাবে মানুষ খুন করেছেন তা জনগণ ভুলে যায়নি। সে সময় আপনার দলের লোকদেরও নাকি আপনা্র নির্দেশে হত্যা করা হয়েছে। এখন নতুন করে মন্ত্রীত্ব পাওয়ার আশায় একজন সেক্টর কমান্ডারের স্ত্রীকে নিয়ে সমালোচনা করছেন। বেগম খারেদা জিয়ার আত্মা স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষার আত্মা। কোন অবৈধপন্থা অবলম্বন করে বেগম জিয়াকে দেশ থেকে বিদায় করা যায়নি। বাংলাদেশ থেকে তাকে সরানো যায়নি।

তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com