ঐক্যফ্রন্টকে নিয়ে পথ চলা ক্ষতিকর, বোকামি হবে: গয়েশ্বর

Published: Wednesday, November 6, 2019 7:25 PM   |   Modified: Wednesday, November 6, 2019 7:25 PM
 

ডিএল টিভি ডট কম

খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, ‘বিএনপি একটি শক্তি। কারণ বিএনপি জনগণের কথা বলে। আর বিএনপির নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। তাঁর মুক্তির জন্য আমরা, যাদেরকে (জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট) নিয়ে চলি, তাদের মধ্যে যদি অনীহা থাকে তাহলে তো তাদের সাথে দীর্ঘ পথ চলা ক্ষতিকর।’

বুধবার (৬ নভেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে আব্দুস সালাম হলে ‘ঢাকাস্থ হোমনা উপজেলা জাতীয়তাবাদী ফোরাম’ আয়োজিত এক স্মরণ সভা ও মিলাদ মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ারের ২য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, যদি আমরা আন্তরিকতার সাথে মাঠে থাকি তাহলে আমাদের শক্তি যথেষ্ট। সেই কারণে যারা (জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট) আছে তাদেরকে সম্মান করি ও গুরুত্ব দেই। কিন্তু তারা যদি আমাদের ঘাড়ে চেপে তাদের নিজস্ব টার্গেট নিয়ে চলতে চায়, সেই পথে চলা তাহলে আমাদের জন্য বোকামি হবে।’

ঐক্যফ্রন্টের বিভিন্ন সভা-সমাবেশে ফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের বক্তব্যের সময় খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে চিরকুট পাঠিয়ে এ বিষয়ে বক্তব্য রাখা অনুরোধ জানান দলের নেতাকর্মীরা। এবিষয় নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। 

দলের নীতিনির্ধারণী ফোরামের অন্যতম এই সদস্য বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি জন্য তাদেরকে (ফ্রন্টের শীর্ষ নেতা) কেন মঞ্চে চিরকুট দিতে হবে? বেগম জিয়ার মুক্তি কথা তারা কেন বলতে পারবে না? আর যার বিরুদ্ধে আমরা রাজনীতি করি তাদের কথা জোরেশোরে আমাদের সামনে কেন বলা…। তারপরও আমরা সহ্য করি কেন? শুধু মাত্র করি- জাতীয় ও জনগণের স্বার্থে। একারণে আমি মনে করি, সবাইকে একটু সতর্ক হওয়া ভালো।’

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে গয়েশ্বর বলেন, ‘আমার মাঝে মাঝে মনে হয়, আমাদের নিজেদের মধ্যে নিজেদের আত্ম-বিশ্বাস নাই। তারপরও জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করার তাগিদ থেকে ছোট, বড় ও মাঝারি দলসহ অনেক দল নিয়ে ঐক্য করেছি। আবার ফ্রন্টও করেছি। এটা কিন্তু আমাদের রাজনৈতিক অলঙ্কার হতে পারে।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, বেগম সেলিমা রহমান, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, যুগ্ম-মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ বক্তব্যে রাখেন।